DIGITAL

February 5, 2023

APTCE 18538973148

কাঠিগড়া বিধানসভা কেন্দ্রে হাডডাহাডডি লড়াইয়ের সম্মুখীন হতে চলেছেন গৌতমবাবু

বিশেষ প্রতিবেদন কাঠিগড়া 16 ই মার্চ—কাছাড জেলার সাতটি বিধানসভা কেন্দ্রের মধ্যে বিজেপির খাসতালুক কাঠিগড়া বললে ভুল হবে না । আরও একটু বাড়িয়ে বললে এটা বলা যায় বিগত দুই দশক ধরে এখানে মেরুকরণের রাজনীতির সৃষ্টি হয়েছে । বিগত দিনে দেখা গেছে হিন্দু মুসলিম কার্ডের মাধ্যমে খেলা সম্পন্ন হয় , দুই সম্প্রদায়ের 20%20% ভোট নির্ণায়ক ভূমিকা পালন করে ।

বিগত বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে বিশ্লেষণ করা হলে দেখা যায় বিজেপির বিধায়ক আটান্ন হাজারের মতো ভোট পেয়েছেন , আর এ আই ইউ ডি এফ প্রার্থী খলিল উদ্দিন মজুমদার পেয়েছেন একান্ন হাজার ভোট , কংগ্রেস প্রার্থী হিসেবে মৌলানা আতা উর রহমান সাহেব পেয়েছিলেন ষোল হাজার ভোট ।এই প্রতিবেদক কাঠিগড়া বিধানসভা কেন্দ্রের বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সাথে আলাপ আলোচনা করে এটা বুঝেছেন যে ,যদিও হেভি ওয়েট নেতা হিসেবে বিজেপি গৌতম রায় কে টিকিট দিয়েছে কিন্তু এটা। কাঠ লি ছড়া নয় কাঠিগড়া , তিনি যদি পুরোনো কায়দায় ভোট নিতে মেতে ওঠেন তাহলে সেটা তিনি ভূল করবেন ।

গতকাল এই প্রতিবেদক কে নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক জনৈক ব্যক্তি যিনি আপাদমস্তক হিন্দু বাদী নেতা তথা বুদ্ধি জীবি,


বললেন এবারের নির্বাচনে মহাজোটের সমর্থনে কংগ্রেসের টিকিট পেয়ে যেখানে খলিল উদ্দিন মজুমদার ভোটে দাড়িয়ে ছেন সেখানে খলিল উদ্দিন এক মজবুত অবস্থানে চলে গেছেন , তার কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন এমনিতেই কাঠিগড়া তে বদর উদ্দিন আজমলের দলের এক বিশাল সমর্থক আছেন তার উপর বিগত নির্বাচনে কংগ্রেস প্রার্থী আতা উর রহমান সাহেব যে ষোল হাজার ভোট পেয়েছিলেন তার মধ্যে মুসলিম ভোট জোটের প্রভাবে এক লাফে চলে গেছে বলে মনে করতে হবে , অন্যদিকে বাকী একাংশের ভোট অর্ধেকটা বিজেপির দিকে চলে যাবে আর বাকীটা সুস্মিতা দেবের পদ মর্যাদার খাতিরে জোটের প্রার্থী র দিকে চলে যাবে ।এতো গেলো এক পর্ব অন্যদিকে , বিজেপির একনিষ্ঠ কর্মী যারা টিকিট চেয়ে বঞ্চিত হয়েছেন তাদের ভূমিকা কী হবে আর বুদ্ধি জীবি গন কি ভূমিকা পালন করবেন তার উপর নির্ভর করবে বিজেপি প্রার্থীর জয় পরাজয় । সূত্রের খবর সুস্মিতা দেব যে মরন কামড় দিবেন তা নিশ্চিত বলে অনুমান করা হচ্ছে , কারন খলিল উদ্দিন মজুমদারের নাম তিনি সুপারিশ করেছেন ।