DIGITAL

October 7, 2022

APTCE 18538973148

Covid 19 এর মতো ভয়াবহ মহামারী রোগ 103 বছর আগে ও ছিলো , অভিমত

বিশেষ প্রতিবেদন 30 শে এপ্রিল শিলচর—– সংগৃহীত তথ্য থেকে জানা গেছে আজ থেকে প্রায় 103 বছর আগে রোম সাম্রাজ্যে করোনা মহামারীর মতো রোগের প্রকোপ বৃদ্ধি পায় ফলে অসংখ্য মানুষের প্রাণ হানি ঘটে ।তখনকার সময়ের চিকিৎসা বিশেষজ্ঞরা বর্তমান কালের করোনা সংক্রমণের হাত থেকে  জনগণ কে  রক্ষা করতে যেসব নিয়ম নির্দেশিকা জারি করেছেন ঠিক তেমনি মাস্ক পরিধান করা সহ সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে নির্দেশ  দিয়েছিলেন । তখনকার দিনের সাদা কালো ছবিতে দেখা গেলো  চিকিৎসক সহ এই মহামারী প্রতিরোধ  কাজে নিয়োজিত সবাই কে বর্তমানে যে ভাবে মাস্ক পরিধান করা সহ পি পি কিট ব্যবহার করা হচ্ছে এবং জনসাধারণ ও  মাস্ক পরিধান করে চলাফেরা করছেন ।

অত এব মাস্ক পরিধান করা ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার নির্দেশ নূতন কিছু নয় , তখনকার তথ্য প্রযুক্তি এতটুকু উন্নত ছিল না তাই এসব নিয়ে বড় বেশি হৈ ছৈ হতো না , কিন্তু  103 বছর পর উন্নত মানের তথ্য প্রযুক্তি র জন্য করোনা সংক্রান্ত বিষয়ে জোরদার প্রচার চলছে ফলে জনসাধারণের মধ্যে এক আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে । প্রতিদিন করোনা ছাড়া আর ও অন্যান্য  রোগে আক্রান্ত হয়ে এবং দূর্ঘটনা জনিত কারণে কত লোকের যে প্রাণ হানি ঘটছে তা নিয়ে আমরা কতটুকু অবগত হই সে বিষয়ে সাধারণ মানুষের কাছে কোনো কৌতুহল নেই , শুধু মাত্র করোনা সংক্রমণের ফলে কতজন মানুষ মারা গেছে প্রতিদিন তা সংবাদ মাধ্যম মারফত প্রকাশিত হয় ।বর্তমানে পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে চলে গেছে যে বার্ধক্য জনিত রোগের কারনে যদি মুমূর্ষু রোগী কে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় আর উন্নত মানের চিকিৎসা করাতে যদি মেডিক্যাল কলেজে পাঠানো হয় এবং রাস্তায় যদি সেই রোগীর প্রাণ চলে যায় তাহলে ও পরিবারের লোকজন বিপদে পড়ে যান, গুজবে ছয়লাপ হয়ে যায় করোনা সংক্রমণের ফলে মৃত্যু হয়েছে ।এধরনের এক সংবাদ পাওয়া গেছে বড় খলা বিধানসভা কেন্দ্রের আন্দ র গুল গ্রামের জনৈক প্রভাত দাসের  আনুমানিক পঁচানব্বই বছরের মা বার্ধক্য জনিত রোগের  কারণে ভুগছিলেন দুই দিন আগে স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা শিলচর মেডিক্যাল কলেজে পাঠানোর কথা বললে পরিবারের লোকজন শিলচর মেডিক্যাল কলেজে  নিয়ে চলেন , কিন্তু সেখানে পৌছানোর আগেই মাঝ পথে মৃত্যু হয় ।বাড়িতে পৌঁছে দাহ করার সময় গুজব ছড়িয়ে পড়ে করোনা সংক্রমণের ফলে মৃত্যু হয়েছে  , কিন্তু এখানে করোনা সংক্রান্ত কারনে যে মৃত্যু হয় নি সচেতন মহল উপলব্ধি করতে পারায় জল বেশি দূর গড়াতে পারে নি ।গতকালের ঘটনা চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিতে সক্ষম হয়েছে যে গুজবে সমাজের মধ্য যতটুকু আতঙ্ক ছড়ায়  তার চাইতে কম ছড়ায় করোনা থেকে ।

এখানে উল্লেখ্য যে মহামারী তো মহামারী , তাই স্বাস্থ্য বিভাগের নির্দেশিকা মেনে চলাচল করলে অন্তত নিশ্চিত মৃত্যুর হাত থেকে রেহাই পাওয়া যাবে , অযথা আতঙ্কিত হয়ে লাভ নেই বলে সচেতন মহল থেকে পরামর্শ আসছে ।,