DIGITAL

February 4, 2023

APTCE 18538973148

আসামের আধার কার্ড প্রসঙ্গ সংসদে তুললেন তৃণমূল সাংসদ সুস্মিতা দেব

বিশেষ প্রতিবেদন 2 রা ডিসেম্বর শিলচর— যেমনটা ভাবা গেছিল তেমনটাই হলো , আসামের কোনো সাংসদ লোকসভার হোন আর রাজ্যসভার হোন এই আধার কার্ড সমস্যা নিয়ে কথা না বললেও পশ্চিমবঙ্গ থেকে নির্বাচিত রাজ্যসভার সাংসদ সুস্মিতা দেব গতকাল রাজ্যসভায় তুলে ধরে আসামের প্রায় 33 থেকে 34 লক্ষ আধার কার্ড বঞ্চিত দের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পেরেছেন বলে মনে করছেন সচেতন নাগরিক গন ।

আজ বেশ কিছু নিরপেক্ষ বুদ্ধি জীবি এই প্রতিবেদকের কাছে তুলে ধরলেন আধার কার্ড বঞ্চিত সাধারণ মানুষের হেনস্থা র কথা । তাদের বক্তব্য থেকে এটাই বুঝাতে পারা গেছে যে, যেহেতু একমাত্র আসাম রাজ্যে এই আধার কার্ড সমস্যা দেখা দিয়েছে সেখানে আসামের সাংসদের উচিত ছিল সংসদে এই গুরুতর সমস্যা নিয়ে আলোচনা করা সেখানে তাদের নীরবতা রহস্য ঘেরা মনে হচ্ছে । প্রশ্ন উঠেছে। অধিকাংশ আধার কার্ড বঞ্চিত হচ্ছেন বাংলা ভাষী জনগন  অথচ বাংলা ভাষী সাংসদ গন বিশেষ করে তারা উল্লেখ করেছেন শিলচরের সাংসদের কথা  ও  আজমলের দলের কথা ।কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার যেখানে আধার কার্ড কে প্রতিটি ব্যাপারে সংযোগ করতে লেগেছে সেখানে আসামের আনুমানিক পঁয়ত্রিশ লক্ষ মানুষ আধার কার্ড পাচ্ছেন না ফলে সরকারি সুযোগ সুবিধা ভোগ করতে পারছেন না এমতাবস্থায় পশ্চিমবঙ্গ থেকে নির্বাচিত রাজ্য সভার সাংসদ এই বিষয়ে রাজ্য সভায় প্রশ্ন উত্থাপন করলে স্বরাষ্ট্র প্রতি মন্ত্রী উত্তরে বললেন 2019 ইংরেজি র 31 শে আগস্ট যে খসড়া তালিকা প্রকাশিত হয়েছে এবং তাদের মধ্যে যাদের নাম বাদ পড়েছে তাদের আপত্তি দর্শানো র জন্য একটা তালিকা তৈরি হয়েছে সেটা শেষ না হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে এই সব আধার কার্ড বঞ্চিত দের  , এব্যাপারে কেন্দ্র সরকার সঠিক কিছু বলতে পারবে না । যেহেতু এই বিষয় আদালতের নির্দেশে হয়েছে সেখানে একমাত্র আদালত ই সিদ্ধান্ত নেবে ।

সরকারের এই সিদ্ধান্তে র কথা চাউর হতেই আধার কার্ড বঞ্চিত দের মধ্যে আরও আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে,। এখানে উল্লেখ করা আবশ্যক এই নিউজ পোর্টালে র  এক  প্রতিবেদনে বলা হয়েছিলো যে আসামের বাংলা ভাষী দের কথা এবার সংসদে ঠাই পাবে আর হলো ও তাই ।