DIGITAL

October 4, 2022

APTCE 18538973148

প্রধানমন্ত্রী আবাস গৃহ থেকে বঞ্চিত গরীব গৃহহীন মানুষ, নীরব প্রশাসন নীরব জনপ্রতিনিধি

বিশেষ প্রতিবেদন ১২ই এপ্রিল শিলচর—– সরকার গৃহহীন গরীব মানুষের জন্য পূর্বে ইন্দিরা আবাস নামে এবং বর্তমান সরকারের আমলে প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার মাধ্যমে পাকা পোক্ত ঘর তৈরি করার জন্য হাজার কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করলেও প্রকৃত হিতাধিকারি চয়নে দূর্নীতি হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।বরাক উপত্যকার প্রতিটি জেলায় প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার গৃহ বন্টনের বিস্তর অভিযোগ সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ার পর ও কোনো ধরনের পদক্ষেপ হাতে নেওয়া হয় নি, বরং পূর্বতন সরকারের  আমলের চেয়ে বর্তমানে প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার গৃহ বরাদ্দ করতে আরো ও একধাপ দূর্নীতি বেড়েছে বলে জানিয়েছেন একাংশ বঞ্চিত মানুষ।

এই প্রতিবেদক কে বেশ কিছু গরীব গৃহহীন মানুষ অভিযোগ করেছেন যে তাদের নাম তালিকাভুক্ত থাকার পরও বিভিন্ন কারন দেখিয়ে পঞ্চায়েত প্রতিনিধিরা তাদের কে ছেটে সামর্থবানদের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী আবাস গৃহ বিতরণ করছেন, অনেক জায়গায় একটি বাড়ীতে চার পাঁচটা ঘর তৈরি করা হয়েছে। কিন্তু প্রকৃতপক্ষে যাদের জন্য সরকার এই প্রকল্প হাতে নিয়েছে তারা কিন্তু যেমনি আছেন তেমনি রয়েছেন। বর্তমান সরকারের আমলে অভিযোগ করে কোনো লাভ নেই বলে মন্তব্য করেছেন জনৈক ব্যক্তি, তিনি বলেন মূখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা মহাশয় যদি এতই গরীব দরদী হন তাহলে পঞ্চায়েত ও গ্রাম উন্নয়ন বিভাগের লাগাম টেনে ধরেন না  কেন,?

অন্য এক জন বঞ্চিত মানুষের অভিযোগ কাছাড় জেলার জেলা শাসকের কাছে বারবার দাবি জানিয়ে স্মারকলিপি প্রদান করেছেন তথাপি দূর্নীতি প্রতিরোধ করতে সক্ষম হয় নি জেলা প্রশাসন, বরং আরও বেশি করে দূর্নীতি হয়েছে।এই সব বিষয়ে জেলা শাসক যদি এক টোল ফ্রি নম্বর চালু করেন তাহলে বঞ্চিত মানুষের দূর্দশা  লাঘব হতে পারে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।