DIGITAL

January 27, 2023

APTCE 18538973148

চাকরি প্রার্থীর সংখ্যা নিয়ে জোরদার চর্চা শুরু হয়েছে, অতিরিক্ত দুই লাখ কোথা থেকে আসলো ?

নিজস্ব সংবাদদাতা গুয়াহাটি ২৯ শে আগষ্ট — তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী নিয়োগ সংক্রান্ত পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে বলে প্রসাশনের তরফে জানানো হয়েছে।ছোট খাটো দু একটি বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হলে ও আপাতত সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন হয়েছে বলে ধরা যায়। এদিকে বড়ধরনের এক বিসঙ্গতি সংবাদ মাধ্যমের চোখে ধরা পড়েছে, তা নিয়ে রীতিমত উত্তাল বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম।

সুত্রে জানা গেছে আবেদনের সময় পরিস্কার ভাবে উল্লেখ করা হয়েছে যে কর্ম বিনিয়োগ কেন্দ্রে পঞ্জিকরন থাকা প্রার্থী গন আবেদন করতে পারবেন। সুত্রে জানাগেছে সমগ্র রাজ্যে মোট ১২,০৮,৫৮৫ জন বেকার যুবক যুবতীর নাম পঞ্জিকৃত থাকার বিপরীতে অনুষ্ঠিত পরীক্ষায় মোট ১৪,৩০,৩৩৮ জন প্রার্থীদের মধ্যে এডমিট কার্ড পৌঁছেছে, স্বভাবতই প্রশ্ন উত্থাপন হবে কিভাবে ২ লাখ প্রার্থীর নাম অতিরিক্ত ভাবে অন্তর্ভুক্ত হলো? গতকাল পরীক্ষা শেষ হতেই সর্বত্র একই আলোচনা শুরু হয়েছে বলে পরিলক্ষিত হয়।

এদিকে সরকারের তরফে জানানো হয়েছে কোথাও কোন অনিয়ম ধরা পড়ে নি, মাননীয় মূখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা মহাশয় এক বিবৃতিতে ও বলেছেন মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৪,৩০,৩৩৮, জন  এবং তারা পরীক্ষার্থী হিসেবে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছেন তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য ভাবে একটা কথা বলেছেন ইউনিক আধার পরিচয়ে মোট সাড়ে নয় লাখ প্রার্থীর নাম চিহ্নিত করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন যে যে সব প্রার্থী উত্তীর্ণ হতে পারবেন না তাদের পরীক্ষার মাশুল ঘুরিয়ে দেবেন।

মাননীয় মূখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা মহাশয়ের এই ঘোষণা বড়ই রহস্যময় বলে জানিয়েছেন একাংশ সচেতন নাগরিক,তারা বলেন যে এই নিযুক্তি প্রদান ব্যাপারে আঁধার কার্ড প্রসঙ্গ উত্থাপন করার কথা কিসের ইঙ্গিত, ইতিমধ্যে রেশন কার্ডের সাথে আধার কার্ড সংযুক্তি করন এবং বর্তমানে ভোটার আইডির সাথে আধার কার্ড সংযুক্তি করন কাজ প্রায় শেষের পথে তাই চাকরির ক্ষেত্রে ও কি আধার কার্ড বাধ্যতামূলক? এমনটাই বুঝা গেল মূখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা মহাশয়ের কথায়।

এদিকে মাননীয় মূখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা মহাশয় বরাক উপত্যকায় বিগত দিনে এসে ঘোষণা করেছিলেন যে তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী নিয়োগ বরাক উপত্যকা থেকে স্থানীয় ভাবে নিযুক্ত করা হবে কিন্তু বর্তমানে যে পদ্ধতিতে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত করা হলো সেখানে স্থানীয় প্রার্থী নিযুক্তি কতটুকু মসৃণ হবে তা নিয়ে রীতিমতো উৎকন্ঠিত হয়ে পড়েছেন চাকরি প্রার্থীরা।