DIGITAL

March 24, 2023

APTCE 18538973148

ভুয়ো ফেইসবুক আইডি দিয়ে নাবালিকার শ্লীলতাহানি, লক্ষ্মীপুর থানায় মামলা দায়ের করে ও সুরাহা হয়নি,ডি,জি,পির দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন অসহায় নাবালিকার মা

লক্ষ্মীপুর থেকে অসীম রায়ের প্রতিবেদন ৫ই মার্চ —– বর্তমান তথ্য প্রযুক্তির যুগে সামাজিক মাধ্যম  এক বিশেষ ভূমিকা রাখে। কারো কাছে এই সামাজিক মাধ্যম এক আশীর্বাদ আর কারও কাছে এটা অভিশাপ। আর এই অভিশাপ আছড়ে পড়ে কাছাড়ের লক্ষ্মীপুর মহকুমার  পয়লা পুল এলাকার জনৈকা পায়েল দাশগুপ্তের পরিবারে।

সূত্র মতে জানা গেছে গত ১১ ই ফেব্রুয়ারি   ঐ নাবালিকার মায়ের নজরে আসে যে ফেইসবুকে তার মেয়ের ফটো প্রফাইল পিকচারে দিয়ে একটি ফেসবুক পোষ্ট করা হয়েছে,যা কিনা অত্যন্ত কুরুচিপূর্ণ, এদিকে এই নাবালিকার নামে কোনো ফেইসবুক আইডি নেই তাহলে কিভাবে এটা ভাইরাল হলো, এনিয়ে রীতিমতো অবাক হয়ে তার শুভানুধ্যায়ীদের কাছে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেন। তাদের সম্মিলিত পরামর্শে পায়েল দাশগুপ্তা লক্ষ্মীপুর থানায় যোগাযোগ করেন। তিনি এই বিষয়ে বিধায়ক কৌশিক রাই মহাশয়কে ও অবগত করান। নিজের নাবালিকা মেয়ের ভবিষ্যৎ অটুট রাখতে তিনি কাছাড়ের পুলিশ সুপার মহাশয়ের সাথে ও যোগাযোগ করেন।

নিরুপায় হয়ে অসহায় পায়েল দাশগুপ্তা লক্ষ্মীপুর থানায় গত ২০ ফেব্রুয়ারি এক মামলা দায়ের করেন। মামলা ( নং ৫১/২০২৩ এবং ৪১৯/২৯৪ আই পি সি ধারা এবং ৬৬ সি /৬৬ ডি/৬৭ ) তিনি তার বয়ানে বলেন অবিলম্বে তদন্ত করে উপযুক্ত ব্যবস্থা নিতে, কিন্তু অতীব দুঃখের বিষয় আজ পর্যন্ত পুলিশ শুধুমাত্র ঐ ছেলেটির মোবাইল ফোন ট্র্যাকিং করে তার পরিচয় ও ঠিকানা লাভ করে আর অগ্রসর হয়নি।

এদিকে নাবালিকার মানসিক অবস্থা বেগতিক দেখে আজ পায়েল দাশগুপ্তা এক সাংবাদিক সম্মেলনে তার অসহায়ের কথা তুলে ধরেন।, তিনি জানান যেভাবে অশ্লীল ফটো ভাইরাল করছে ঐ ছেলেটা তার ফলে যে কোনো সময় আমার নাবালিকা মেয়ে বড় ধরনের ঘটনা সংঘটিত করতে পারে বলে তিনি মনে করেন। তিনি সরাসরি বলেন এধরনের ঘটনা সংঘটিত হলে লক্ষ্মীপুর পুলিশ তার দায়ভার এড়াতে পারবে না।

আজকের এই সাংবাদিক সম্মেলনে অন্যান্য দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পায়েল দাশগুপ্তা,বিভা দাশগুপ্তা, গণেশ কানু ঝর্ণা আচার্য,অনিশা আচার্য,সায়নী দাস, সন্দীপ আচার্য প্রমূখ। আজকের এই সভায় উপস্থিত সবাই এক বাক্যে প্রসাশনের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন, তাদের মতে আজ পায়েল দাশগুপ্তার নাবালিকা মেয়ের সাথে এমনতর ঘটনা সংঘটিত হয়েছে আগামী দিনে এভাবে আরও পায়েল দাশগুপ্তার মতো মায়েদের  এভাবেই যে ঘটবে না তার কি ভরসা আছে?

এখানে উল্লেখ্য যে এভাবে ভূয়া ফেইসবুক আইডি দিয়ে অশ্লীল ফটো,ভিডিও ভাইরাল করার দায়ে  অভিযুক্ত কে যদি পাকড়াও করা যায় তাহলে পায়েল দাশগুপ্তার মেয়ের বিষয়ে আসাম পুলিশ কেনো পারছে না ?  তা  নিয়ে রীতিমতো  সমালোচনা শুরু হয়েছে।অন্য এক বিশেষ সুত্রে জানা গেছে  নাবালিকার মা অবশেষে আসামের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা ও ডিআইজি জে,পি, সিনহার দ্বারস্থ হতে প্রস্তুতি নিতে চলেছেন, তিনি চান তার মতো আর কোনো নাবালিকার জীবনে যেন এমন ঘটনা সংঘটিত না হয়।  কিভাবে এই ফেইসবুক আইডি ব্লক করা যায় তারজন্য  সবার কাছে আহ্বান জানান তিনি , অবশেষে তিনি কাছাড়ের জেলা শাসক রোহন কুমার ঝা মহাশয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলছেন নাবালিকার ভবিষ্য ৎ  চিন্তা করে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পুলিশ কে নির্দেশ দেন।